• ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সিলেটে অপহরণে বাধা দেওয়ায় সাংবাদিকের হাত কেটে নেওয়ার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত মার্চ ২৮, ২০২৪
সিলেটে অপহরণে বাধা দেওয়ায় সাংবাদিকের হাত কেটে নেওয়ার হুমকি ছাত্রলীগ নেতার

সিলেটে এক ফটোসাংবাদিকের হাত কেটে নেওয়ার হুমকি দিয়েছেন পিয়াং সোম নামে এক ছাত্রলীগ নেতা। এক যুবককে অপহরণের চেষ্টাকালে ওই সাংবাদিক ছবি তোলায় তিনি এ হুমকি দেন বলে অভিযোগ।

বুধবার (২৭ মার্চ) বিকেল সাড়ে ৪টার দিকে নগরের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির সামনে এ ঘটনা ঘটে। অভিযুক্ত পিয়াং সোম সিলেট সিটি করপোরেশনের দুই নম্বর ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি।

ওই ফটোসাংবাদিকের নাম রেজা রুবেল। তিনি সরকার নিবন্ধিত স্থানীয় একটি অনলাইন নিউজ পোর্টালে কাজ করেন।

পাশাপাশি তিনি বাংলাদেশ ফটো জার্নালিস্ট অ্যাসোসিয়েশনের (বিপিজেএ) সিলেট বিভাগীয় কমিটির ক্রীড়া ও সংস্কৃতিবিষয়ক সম্পাদক।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, কয়েকজন অনুসারী নিয়ে নগরের বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির বিপরীতে এক যুবককে মারধর করে গাড়িতে তোলার চেষ্টা করেন পিয়াং সোম।

পেশাগত দায়িত্ব পালনে ওই সড়ক দিয়ে মোটরসাইকেলে করে নগর ভবনে যাচ্ছিলেন রেজা রুবেল।

পথিমধ্যে ঘটনাটি দেখে ছবি ও ভিডিও ধারণ করছিলেন। এমন সময় ছাত্রলীগ নেতারা তাকে ধাওয়া করেন। নিরাপত্তা পেতে তিনি বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির সামনে অবস্থান নেন। তখন ছাত্রলীগ নেতারা তার ওপর চড়াও হন।

পিয়াং সোম নিজেকে ওয়ার্ড ছাত্রলীগের সভাপতি পরিচয় দিয়ে বলেন, কার ক্ষমতা আছে কিছু করার। আমি কুট্টি সিলেটি। এ সময় অকথ্য ভাষায় সাংবাদিক সমাজ তুলে গালিগালাজ করে সাংবাদিক রেজা রুবেলের হাত কেটে নেওয়ার হুমকি দেন। পুলিশ ফাঁড়ির সামনে ঘটনাটি ঘটলেও কোনো পুলিশ সদস্য তাদের নিবৃত্ত করতে এগিয়ে আসেননি।

ফটোসাংবাদিক রেজা রুবেল বলেন, পিয়াং সোম নিজেকে মহানগর ছাত্রলীগের ২ নম্বর ওয়ার্ড সভাপতি পরিচয় দিয়ে সাংবাদিক সমাজ তুলে গালিগালাজ করেন এবং আমার হাত কেটে নেওয়ার হুমকি দেন। এ ঘটনার একটি ভিডিও ফুটেজ রয়েছে। পুলিশ ফাঁড়ির ক্যামেরার ভিডিও ফুটেজেও বিষয়টি পরিষ্কার বুঝা যাবে। বর্তমানে আমি প্রাণ ভয়ে আছি। এজন্য আমি আইনের আশ্রয় নেব।

সিলেট মহানগর ছাত্রলীগের সভাপতি কিশওয়ার জাহান সৌরভ বলেন, পিয়াং সোম জেলা ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক রাহেল সিরাজের গ্রুপ করেন। কমিটিতে আসার আগে খুবই ভালো ছিলেন। পদে আসার পর বেপরোয়া হয়ে গেছেন। অপহরণের চেষ্টা এবং সাংবাদিকের সঙ্গে দুর্ব্যবহারের ঘটনাটি দুঃখজনক। আমরা বিষয়টি গুরুত্ব দিয়ে দেখছি।

সিলেট কোতোয়ালি মডেল থানাধীন বন্দরবাজার পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ (এসআই) কল্লোল গোস্বামী বলেন, এ বিষয়টি আমার জানা নেই। আমি খোঁজ নিয়ে দেখছি।

গত বছরের ১৩ নভেম্বর সিলেট সিটি করপোরেশনের ১ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর সৈয়দ তৌফিকুল হাদীর বাসায় হামলা ও মোটরসাইকেল ভাঙচুর করেন পিয়াং সোমসহ তার অনুসারীরা। পরে সিসিকের বেশ কয়েজন কাউন্সিলর ও জেলা ছাত্রলীগ নেতাদের মধ্যস্থতায় বিষয়টি স্থানীয়ভাবে মীমাংসা হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •