• ১৬ই জুলাই, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ১লা শ্রাবণ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১০ই মহর্‌রম, ১৪৪৬ হিজরি

জৈন্তাপুরে ডিআই পিকআপের সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত ৩

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত মার্চ ৬, ২০২৪
জৈন্তাপুরে ডিআই পিকআপের সাথে মোটরসাইকেলের সংঘর্ষে নিহত ৩

সিলেট তামাবিল মহাসড়কে বেপরোয়া গতির পিকআপের ধাক্কায় তিন মোটরসাইকেল আরোহীর মর্মান্তিক মৃত্যু হয়েছে।

এতে আহত হয়েছে আরো একজন।

নিহতরা হলেন শিহাব (২২)। সে মোকামবাড়ী এলাকার আলাউদ্দিন মিয়ার পুত্র। অপর দুইজন নিহতরা হলেন ফয়সাল রেজা (২২) ও পাবেল আহমেদ (১৮)।

নিহত ফয়সাল রেজা জৈন্তাপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এম লিয়াকত আলির ছেলে। পাবেল একই এলাকার ব্যাবসায়ী আবদুল হান্নানের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, মঙ্গলবার  (৫ই মার্চ) রাত ১০:০০ ঘটিকার সময় তামাবিল মহাসড়কে জাফলং ভ্যালী বোর্ডিং স্কুলের সামনে নলজুরী গামী একটি বেপরোয়া গতির ডিআই পিকআপ ( সিলেট- মেট্রো-ন ১৫-২৯৯৯) একসাথে  বিপরীত দিক থেকে আসা দুইটি মোটরসাইকেলকে চাপা দেয়। এ সময় পিকআপটি মোটরসাইকেল দুইটিকে  প্রায় ২০ ফুট দূরে টেনে হিচড়ে নিয়ে যায়।

দূর্ঘটনার পর পর ঘাতক পিকআপ চালক পালিয়ে যায়। পরে স্থানীয় লোকজনের সহায়তায় আহত মোটরসাইকেলের চার আরোহীকে উদ্ধার করে জৈন্তাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক শিহাবকে মৃত ঘোষনা করেন।

 

 

পরে আহত অপর তিনজনকে প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে দ্রূত সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হলে রাত ১২:০০ ঘটিকায় চিকিৎসারত অবস্থায় ফয়সাল রেজার মৃত্যু হয়।  এ সময় পাবেলের অবস্থার অবনতি হলে তাকে আইসিইউতে স্থানান্তর করা হশ। রাত দেড়টায় সেও মৃত্যুর কোলে ঢলে পড়ে। আহত অপর যুবক আরমি খাশিয়া। তার অবস্হা স্থিতিশীল বলে জানায় চিকিৎসক।

এ বিষয়ে জৈন্তাপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা তাজুল ইসলাম (পিপিএম)  ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, দূর্ঘটনার পর ঘন্টা দুয়েক তামাবিল মহাসড়কে যানচলাচল বন্ধ ছিলো। পরে পুলিশ স্হানীয় ব্যাক্তিদের হস্তক্ষেপে যানচলাচল স্বাভাবিক করা হয়েছে। তিনি জানান ঘাতক পিকআপ চালককে গ্রেফতারে অভিযান চালাচ্ছে পুলিশ। নিহতদের মরদেহ সুরতহাল প্রতিবেদন শেষে স্বজনদের নিকট হস্তান্তর করা হয়েছে।

এদিকে বেপরোয়া ডিআই পিকআপের সংঘর্ষে তিনজনের মৃত্যুর ঘটনায় পুরো জৈন্তাপুরসহ সিলেটে নেমে এসেছে শোকের ছায়া। মৃত্যুর খবর পেয়ে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে তাৎক্ষণিক ছুটে আসেন সিলেট জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট নাসির উদ্দিন খান সহ সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের নেতৃবৃন্দ।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন