• ২১শে এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৮ই বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১২ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

সিলেটে চাল নিয়ে চালবাজি,বেকায়দায় ক্রেতারা

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত ফেব্রুয়ারি ১৪, ২০২৪
সিলেটে চাল নিয়ে চালবাজি,বেকায়দায় ক্রেতারা

বেশ কিছুদিন যাবত চাল বিক্রি হচ্ছে বাড়তি দামে। বাজারে দাম কমার কোন লক্ষণ দেখা যাচ্ছে না। বাজারে বর্তমানে মোটা চাল বস্তাপ্রতি ২২০০ টাকা ও মিনিকেট আতপ বস্তাপ্রতি ২৭৯০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। আর চালের এই বাড়তি দর পাইকারি ও খুচরা বিক্রেতারা সমন্বয় করছেন। ফলে চাল কিনতে বেশি টাকা খরচ হওয়ায় ক্রেতারা পড়ছেন বেকায়দায়।

সংশ্লিষ্টরা মৌসুমের শুরুতে মিল মালিকেরা চালের দাম বাড়িয়েছেন বললেও মিল মালিক ও পাইকারি ব্যবসায়ীদের দাবি,বাজারে ধানের সরবরাহ কমায় বেড়েছে চালের দাম।

ব্যবসায়ীরা জানান, দেশীয় চালের উপর নির্ভর করলে দর বাড়তে পারে। কারণ, চাষের সামগ্রী যেমন-সার, কীটনাশক ও শ্রমিক মজুরি বেশি, ফলে চাষে খরচ হওয়ার ধানের দরও তুলনামূলক বেশি হচ্ছে। শিগগির চাল আমদানি শুরু হলে চালের দর সহনীয় পর্যায়ে চলে আসবে।

নগরীর কালীঘাটে চাল কিনতে আসা ক্ষুদ্র ব্যবসায়ী রাজু জানান, এমনিতেই ব্যবসা-বাণিজ্য খারাপ যাচ্ছে, তার উপর চালের বাড়তি দর, সংসার চালাতে রীতিমত হিমশিম খেতে হচ্ছে। তিনি বলেন, শুধু যে চাল তা কিন্তু নয়, নিত্যপ্রয়োজনীয় সব কিছুতেই দর বেশি, দেখার যেনো কেউ নেই।

কালিঘাটের চাল ব্যবসায়ী বাবুল দেব জানান, মোটা সিদ্ধ ৫০ কেজি বস্তা ২২০০ টাকা, জিরা সিদ্ধ ৫০ কেজি বস্তা ৩৩৫০ টাকা, মিনিকেট সিদ্ধ ৫০ কেজি বস্তা ২৬০০ টাকা, নাজিরশাইল ২৫ কেজি বস্তা ১৬০০ টাকা, নতুন রনজিত ৫০ কেজি বস্তা ২২০০ টাকা, ২৮ মালা বৈশাখী ৫০ কেজি বস্তা ২৯৫০ টাকা, ২৯ মালা ৫০ কেজি বস্তা ২৬৫০ থেকে ২৭০০ টাকা, মিনিকেট আতপ ৫০ কেজি বস্তা ২৭৯০ টাকা, নরমাল কাটারি ৫০ কেজি বস্তা ২৫৫০ টাকা, কাটারিভোগ ২৫ কেজি বস্তা ১৫৫০ থেকে ১৬০০ টাকা, লোকাল চিনিগুঁড়া ২৫ কেজি বস্তা ১৬০০ টাকা ও ১ নম্বর চিনিগুঁড়া ৫০ কেজি বস্তা ৬৫০০ থেকে ৬৬০০ টাকায় বিক্রি করছেন।

এবিষয়ে ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদপ্তর সিলেটের সহকারী পরিচালক (মেট্রো) শ্যামল পুরকায়স্থ সিলেট প্রতিদিনকে বলেন, চাল সহ নিত্যপণ্যের দাম বৃদ্ধির বিষয়ে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। কেউ অতিরিক্ত দামে চাল সহ নিত্যপণ্য বিক্রি করলে তার বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •