• ৩০শে জুন, ২০২২ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই আষাঢ়, ১৪২৯ বঙ্গাব্দ , ১লা জিলহজ, ১৪৪৩ হিজরি

কোম্পানীগঞ্জে চেয়ারম্যান ইমাদের বিরুদ্ধে চাঁদাবাজির অভিযোগ

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত এপ্রিল ১০, ২০২২
কোম্পানীগঞ্জে চেয়ারম্যান ইমাদের বিরুদ্ধে  চাঁদাবাজির অভিযোগ

কোম্পানীগঞ্জ সংবাদদাতাঃ সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রনিখাইয়ে মাদক নির্মূলের নামে কমিটি গঠন করে প্রথমেই নিজের এলাকার মাদক কারবারিদের বিরুদ্ধে কোনো ব্যবস্থা না নিয়ে নিরীহ পথচারীদেরকে পুলিশের ভয় দেখিয়ে লাখ লাখ টাকা আদায়ের অভিযোগ উঠেছে সিলেটের কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রনিখাই ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদের বিরুদ্ধে।

টাকা দিতে অস্বীকৃতি জানালে কমিটির মাধ্যমে বিচার ডেকে তাদের মারপিট করে টাকা আদায় করা হয়। গত ২ এপ্রিল দক্ষিণ রনিখাই ইউপি চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদের সভাপতিত্বে এক জরুরি সভার আয়োজন করা হয়?

কমিটির মাধ্যমে লাখ লাখ টাকা জরিমানা আদায় করা হয়েছে। জামায়াত থেকে আগত নব্য আওয়ামিলীগ চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদের নেতৃত্বে গঠিত কমিটিতে এলাকার বেশ কয়েকজন রয়েছেন। এদের মধ্যে বেশ কয়েকজনের বিরুদ্ধে মাদক বিক্রিরও অভিযোগ রয়েছে।

সরেজমিনে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রনিখাই ইউপি চেয়ারম্যানের ফেইসবুক লাইভে দেখা গেছে, কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রনিখাই ইউপি এলাকায় নিম্ন আয়ের প্রায় অর্ধসহস্রাধিক।

এসব মানুষের অধিকাংশই শিক্ষা থেকে বঞ্চিত। থানা পুলিশের হিসাবে ওই ইউনিয়নের পাড়ায় ১৫/২০ জন চিহ্নিত মাদক বিক্রেতা এবং শতাধিক মাদকের হাট রয়েছে।

পুলিশ মাঝেমধ্যে অভিযান চালিয়ে তাদের ধরে জেল হাজতে পাঠালেও জেল থেকে ছাড়া পেয়ে পুনরায় মাদক বিক্রি ও সেবন করে থাকে। এসব মাদক কারবারিদের কাছ থেকে স্থানীয় বাসিন্দারা ছাড়াও উপজেলা বিভিন্ন এলাকার মাদকসেবীরা এসে মাদক কিনে থাকে।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকার স্থানীয় কয়েকজনের সঙ্গে কথা হলে তারা জানান,কমিটি গঠনের শুরুর দিকে দুই একজন মাদক সেবনকারীদের ধরে পুলিশে সোর্পদ করলেও পরে থানা পুলিশ ও বিচারের ভয় দেখিয়ে টাকা আদায়ের করার কৌশল গ্রহণ করেন কমিটির নেতা-সদস্যরা।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে,কারো কাছ থেকে ১০ হাজার টাকা কারো কাছ থেকে ২০ হাজার টাকা, মোট কথা যার কাছ থেকে যা’ নেওয়া যায়।

এভাবেই লাখ লাখ টাকা আদায় করা হয়।
নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক কয়েকজন জানান-তাদের তিন-চারজনের কাছ থেকে ভয় দেখিয়ে ৪৫ হাজার টাকা নিয়েছে ইমাদ বাহিনী।

এক মাদক বিক্রেতা বলেন,কী কমিটি করছে পাঁচ হাজার টাকা দিলেই ছেড়ে দেয়। মূল কথা হচ্ছে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার দক্ষিণ রনিখাই ইউপির নব্য আওয়ামিলীগ চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদের এলাকায় প্রকাশ্যেই মাদক বিক্রি করলেও তাদের ধরা হয় না,কিন্তু বহিরাগত দেখলেই মাদক নির্মূল করতে চান তারা।

চেয়ারম্যানের ফেসবুক লাইভে দেখা যায় মাদক সেবনকারী বলে কয়েকজন যুবককে আটক করে ষ্ট্যাম্প পেপার করে নিজের ইউনিয়নের রাস্তার কাজের জন্য ওই যুবকদের কাছ থেকে দেড় থেকে দুই লক্ষ টাকা আদায় করে পরে তাদের ছেড়ে দেওয়া হয়।

দুঃখের ঘটনা হলেও সত্যি যে স্ট্যাম্প পেপারে যুবকদের দস্তগত রাখা হয়েছে সেই স্ট্যাম্প পেপারটাও যুবকদের টাকা থেকে কিনে আনা হয়। যদিও লাইভে কোনভাবে যুবকদের কাছে মাদক অথবা মাদকের কোনো আলামত দেখাতে পারেননি তারা।

এ ব্যপারে জানতে চেয়ারম্যান ইকবাল হোসেন ইমাদের মুঠোফোনে কল দেওয়া হলে নাম্বারটি ব্যস্ত পাওয়া যায়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •