• ১৬ই এপ্রিল, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৩রা বৈশাখ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ৭ই শাওয়াল, ১৪৪৫ হিজরি

বিভিন্ন সড়কে শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে সিলেটে ছাত্র ইউনিয়নের বিক্ষোভ

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত নভেম্বর ২৬, ২০২১
বিভিন্ন সড়কে শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে সিলেটে ছাত্র ইউনিয়নের বিক্ষোভ

দেশের বিভিন্ন সড়কে শিক্ষার্থী নিহতের প্রতিবাদে,সিলেটে পর্যাপ্ত গণপরিবহনের ব্যবস্থার দাবিতে এবং শিক্ষার্থীদের চলমান হাস পাসের আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে সিলেটে বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেছে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলা সংসদ।বৃহস্পতিবার (২৫ নভেম্বর) বিকেল চারটায় নগরের চৌহাট্টা পয়েন্টে এ বিক্ষোভ সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। সমাবেশ শেষে একটি মিছিল নগরের বিভিন্ন সড়ক প্রদক্ষিণ করে শহীদ মিনারে গিয়ে শেষ হয়।

বিক্ষোভ সমাবেশে বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট জেলা সংসদের সাধারণ সম্পাদক মো. নাবিল এইচের সভাপতিত্বে ও মহানগর সংসদের শিক্ষা ও গবেষণা সম্পাদক নাহিদ হাসান প্রান্তিকের সঞ্চালনায় বক্তব্য দেন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন এমসি কলেজ সংসদের সভাপতি পংকজ চক্রবর্তী জয়, মহানগর সংসদের দপ্তর সম্পাদক সন্দীপ দাস, দক্ষিণ সুরমা সংসদের সাংগঠনিক সম্পাদক মিজু আহমেদ, এমসি কলেজের শিক্ষার্থী নরোত্তম দাস প্রমুখ। এ সময় উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদেশ ছাত্র ইউনিয়ন সিলেট মহানগরের সভাপতি হাছান বক্ত চৌধুরী কাওছার, লাক্কাতুরা আঞ্চলিক শাখার সভাপতি স্বর্ণা গোয়ালা।

বক্তারা বলেন,প্রতিদিন দেশের বিভিন্ন স্থানের সড়কে শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ মারা যাচ্ছে। বেপরোয়া চালকের জন্যই প্রতিনিয়ত ঘটছে এ ধরনের ঘটনা। কিন্তু সরকার এ নিয়ে উদাসীন। বর্তমান সময়ে দেশে সাধারণ মানুষের স্বাভাবিক মৃত্যুর গ্যারান্টি নেই। অবিলম্বে এ সব ঘটনার সঙ্গে জড়িত চালকদের বিচারের আওতায় আনতে হবে এবং নিহত পরিবারকে আর্থিক সাহায্য দিতে হবে।’সারাদেশে চলা গণপরিবহনে হাফ পাসের আন্দোলনের সঙ্গে সংহতি জানিয়ে বক্তারা বলেন, ‘হাফ পাস শিক্ষার্থীদের অধিকার। এটি কোনো দান নয়। কিন্তু বর্তমানে পরিবহন সিন্ডিকেট শিক্ষার্থীদের এ অধিকার কেড়ে নিতে চায়। তারসঙ্গে যোগ হয়েছে সরকারি দলের দমন-নিপীড়ন।’ অবিলম্বে শিক্ষার্থীদের যৌক্তিক মেনে নেওয়ার আহ্বান জানান তারা।

সমাবেশে বক্তারা বলেন, ‘দেশের বিভিন্ন স্থানে গণপরিবহন ব্যবস্থা থাকলেও সিলেটে পর্যাপ্ত গণপরিবহনের ব্যবস্থা নেই। যার ফলে শিক্ষার্থীসহ সাধারণ মানুষ সিএনজিচালিত অটোরিকশা ও রিকশা চালকদের কাছে জিম্মি হয়ে গেছেন। অতিরিক্ত ভাড়ার মাধ্যমে প্রতিদিন সাধারণ মানুষের পকেট কাটা যাচ্ছে। তাই সিলেটে পর্যাপ্ত গণপরিবহন নামাতে হবে। এতে করে ভাড়ার পাশাপাশি নগরে যানজটও কমে আসবে।’

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •