• ১৯শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ , ৫ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ , ১৩ই জিলহজ, ১৪৪৫ হিজরি

বাংলাদেশের উপর থেকে ‘রেড এলার্ট’ তুলে নিলো যুক্তরাজ্য

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত সেপ্টেম্বর ১৭, ২০২১
বাংলাদেশের উপর থেকে ‘রেড এলার্ট’ তুলে নিলো যুক্তরাজ্য

করোনার সংক্রমণের জন্য অতি ঝুঁকিপূর্ণ আখ্যা দিয়ে বাংলাদেশকে ‘রেড লিস্টে; রেখেছিলো যুক্তরাজ্য।

তবে সংক্রমণের হার কমে আসা এবং পররাষ্ট্রমন্ত্রীর উদ্যোগে এই তালিকা থেকে নামিয়ে বাংলাদেশকে অ্যাম্বারে আনা হয়েছে।

এতে করে বাংলাদেশে আটকে পড়া প্রায় ছয় হাজার ব্রিটিশ-বাংলাদেশি সহজে ব্রিটেন ফিরে যেতে পারবেন।

বাংলাদেশ থেকে ব্রিটেন যেতে আর হোটেল কোয়ারেন্টাইন করতে হবে না তবে হোম কোয়ারেন্টাইন করতে হবে।

শুক্রবার এক ভিডিও বার্তায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন আজ এ তথ্য জানিয়েছেন।

বাংলাদেশের ওপর থেকে রেডএলার্ট তুলে নেয়ায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমেন ব্রিটিশ সরকারকে ধন্যবাদ জানান এবং কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করেন।

সম্প্রতি যুক্তরাজ্য সফরকালে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. মোমেন বিষয়টি নিয়ে ব্রিটেন সরকারের উচ্চ পর্যায়ে কথা বলেন।

পরবর্তিতে ভার্চুয়াল প্ল্যাটফরমে তৎকালীন ব্রিটিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাবের সঙ্গে দ্বিপক্ষীয় বৈঠকে বাংলাদেশকে যুক্তরাজ্যের অতিঝুঁকিপূর্ণ দেশের তালিকা (রেড-লিস্ট) থেকে সরানোর অনুরোধ জানান।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণের হার কমে আসার কথা তুলে ধরে পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন,বাংলাদেশ ব্রিটেনের ৫০ বছরের পুরোনো বন্ধু, তাছাড়া প্রায় ছয় হাজার ব্রিটিশ-বাংলাদেশী আটকা পড়ে আছেন এমতাবস্থায় বাংলাদেশকে রেড-লিস্ট-এ রাখা সমীচীন না।

জবাবে তৎকালীন বিট্রিশ পররাষ্ট্রমন্ত্রী ডমিনিক রাব বলেন, ‘আমি নিশ্চয়তা দিচ্ছি আমাদের দু’দেশের মধ্যে দীর্ঘদিনের বন্ধুত্ব এবং বাংলাদেশের জিনোম সেকুয়েন্সিং ডেটার আরও ঘনঘন প্রকাশের উপর ভিত্তি করে ব্রিটিশ সরকার বাংলাদেশকে রেড-লিস্টে না রাখার বিষয়টি পর্যালোচনা করবে।

প্রসঙ্গত, ক‌রোনা ভ‌াইরা‌সের দ্বিতীয় ঢেউ‌য়ে চল‌তি বছ‌রের এ‌প্রি‌ল মাসের প্রথম সপ্তা‌হে যুক্তরাজ্য সরকার বাংলা‌দেশকে রেড‌লিস্টে যুক্ত ক‌রে।

১০দি‌নের হো‌টেল কোয়া‌রেন্টাইন খরচ ‌নির্ধারণ ক‌রে দেয়া হয় ১৭০০ পাউন্ড। প‌রে আ‌রেক দফা বা‌ড়ি‌য়ে হো‌টেল কোয়ারেন্টাইন খরচ ধরা হয় ২২৮৫ পাউন্ড।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন