• ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

হেলিকপ্টারভর্তি অর্থ নিয়ে গেছেন গনি

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত আগস্ট ১৭, ২০২১
হেলিকপ্টারভর্তি অর্থ নিয়ে গেছেন গনি

কাবুলে তালেবান বাহিনী প্রবেশের মুখে দেশত্যাগ করা আফগানিস্তানের সাবেক প্রেসিডেন্ট আশরাফ গনি পালানোর সময় হেলিকপ্টার ভর্তি করে নগদ অর্থ সাথে নিয়ে গেছেন। রাশিয়ার রাষ্ট্রায়ত্ত বার্তাসংস্থা আরআইএ নিউজ এজেন্সির বরাত দিয়ে করা এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে রয়টার্স।বিদায়ের পূর্বে যদিও আশরাফ গনি বলেছিলেন, আফগানিস্তানের জনগণকে রক্তপাত থেকে বাঁচাতেই দেশত্যাগ করছেন তিনি, তবে দেশটির রুশ দূতাবাসের মুখপাত্র নিকিতা ইশেঙ্কো আরআইএকে জানিয়েছেন, তার চলে যাওয়ার ধরনকে একমাত্র পালানোর সঙ্গেই তুলনা করা চলে।ইশেঙ্কো বলেন, ‘তিনি (আশরাফ গনি) যেভাবে গিয়েছেন, তাকে একমাত্র পালানোর সঙ্গেই তুলনা করা চলে। প্রেসিডেন্ট প্যালেস থেকে বিদায় নেওয়ার সময় চার গাড়িভর্তি নগদ অর্থ নিয়ে গেছেন তিনি।’‘বিমানবন্দরে পৌঁছানোর পর অর্থভর্তি সেই ব্যাগগুলো একটি হেলিকপ্টারে বোঝাই করা হয়েছিল। কিন্তু হেলিকপ্টারে সবগুলোর স্থান সংকুলান না হওয়ায় কয়েকটি ব্যাগ রানওয়েতে ফেলে গিয়েছেন তিনি।’রাশিয়ার প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিনের আফগানিস্তান বিষয়ক বিশেষ দূত জামির কাবুলভ এ বিষয়ে মস্কোভিত্তিক বেতারমাধ্যম ইকো মস্কভিকে বলেন, ‘তিনি কি পরিমাণ অর্থ নিয়ে গেছেন সে সম্পর্কে এখনো কোনো ধারণা পাওয়া যায়নি। তবে ‍আমি আশা করছি, রাষ্ট্রীয় বাজেটের সব অর্থ নিয়ে তিনি পালাননি। কিছু অর্থ যদি বেঁচে যায়, তাহলে সেটি হবে বর্তমান বাজেটের ভিত্তি।’রোববার সন্ধ্যায় সরকারের কয়েকজন উচ্চপদস্থ কর্মকর্তাসহ তাজিকিস্তানের উদ্দেশে কাবুল ছাড়েন গনি। তিনি দেশটির রাজধানী দুশানবেতে পৌঁছালেও তাকে সে দেশে বসবাসের অনুমতি দেয়নি তাজিক সরকার।তারপর সেই রাতেই দুশানবে থেকে মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ওমানের রাজধানী আম্মানে পৌঁছান তিনি। এখন পর্যন্ত সেখানেই আছেন তিনি ও তার সঙ্গীরা। তবে ওমান সরকার তাকে আনুষ্ঠানিকভাবে আশ্রয় দিয়েছে কি না তা এখনো পরিষ্কার নয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •