• ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

সিলেটে অক্সিজেন সরবরাহ বৃদ্ধিসহ ৫ সিদ্ধান্ত

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত আগস্ট ৩, ২০২১
সিলেটে অক্সিজেন সরবরাহ বৃদ্ধিসহ ৫ সিদ্ধান্ত

করোনা নিয়ে সিসিকের জরুরী সভা

সিলেটে দ্রুত বাড়ছে করোনার সংক্রমণ। শনাক্ত ও মৃত্যুর হার কিছুতেই হ্রাস টেনে ধরা যাচ্ছে না। হাসপাতালগুলোতে শয্যা খালি মিলছে না।

এভাবে সংক্রমণ বাড়তে থাকলে আগামীতে আরও খারাপ পরিস্থিতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

এ অবস্থায় করোনীয়ং নির্ধারণে মঙ্গলবার দুপুরে জরুরী সভার আয়োজন করে সিলেট সিটি কর্পোরেশন।

করোনার সংক্রমন রোধ ও সিলেটের চিকিৎসা সেবার উন্নয়ন শীর্ষক এই সভায় ভার্চুয়ালি সংযুক্ত ছিলেন পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড.এ কে আব্দুল মোমেন।

সিলেট সিটি কর্পোরেশনের মেয়র আরিফুল হক চৌধুরীর সভাপতিত্বে এবং সিসিকের প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা বিধায়ক রায় চৌধুরী সঞ্চালনায় সভায় সর্বসম্মতিক্রমে ৫টি সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়।

সিদ্ধান্তগুলো হলো- উৎসমুখে করোনা ভাইরাসের সংক্রমন বন্ধে সিলেট সিটি কর্পোরেশনের ওয়ার্ডে ওয়ার্ডে মাস্ক ও টিকাদানে উদ্বোদ্ধকরণের জন্য প্রচার প্রচারণা অব্যাহত রাখা।
সিলেট বিভাগের উপজেলা সমূহের স্বাস্থ্যসেবার মান আরো উন্নীত করা যাতে উপজেলা পর্যায়ে রোগীরা সর্বোচ্চ পর্যায়ে চিকিৎসা সেবা পেতে পারেন।
সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে অক্সিজেন সঞ্চালন আধুানিকায়ন ও নতুন প্লান্ট স্থাপন করা।

অক্সিজেন কোম্পানিগুলোর সাথে আলোচনা করে সিলেট অঞ্চলে অক্সিজন সরবরাহ আরো বাড়ানোর ব্যবস্থা করা। এবং গৃহীত সিদ্ধান্ত সমূহ প্রতিবেদন আকারে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা, পররাষ্ট্রমন্ত্রী, স্বাস্থ্যমন্ত্রী, পরিকল্পনা মন্ত্রী ও প্রবাসী কল্যান ও কর্মসংস্থান মন্ত্রীর বরাবরে প্রেরণ করা।

সভায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমনের উর্ধ্বগতি ও সিলেটের চিকিৎসা সেবার বর্তমান অবস্থা নিয়ে সংশ্লিষ্টদের মতামত নেয়া হয়। বর্তমানে সিলেটের সবকটি সরকারী বেসরকারী হাসপাতালে সিট, অক্সিজেন সংকটের বিষয়টি তুলে ধরেন আলোচকরা। এছাড়া সভায় করোনা ভাইরাসের সংক্রমন থেকে মুক্ত রাখতে গণটিকা দানে সচেতনতামুলক কার্যক্রম হাতে নেয়ার সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

এতে অংশ নিয়ে পররাষ্ট্রমন্ত্রী ড. এ কে আব্দুল মোমিন এমপি সিলেটের স্বাস্থ্য সেবার উন্নয়নে যথাযথ পদক্ষেপ নেয়ার আশ্বাস প্রদান করেন।

সভা শেষে সাংবাদিকদের ব্রিফ করেন সিসিক মেয়র আরিফুল হক চৌধুরী। তিনি বলেন, সিলেটের ভয়াবহ করোনা পরিস্থিতি কাটিয়ে উঠার লক্ষ্যে সভায় উপস্থিত সবার সম্মতিক্রমে কয়েকটি সিদ্ধান্ত গ্রহণ করা হয়েছে। এর মধ্যে সবচেয়ে বেশি গুরুত্ব দেয়া হয়েছে পর্যাপ্ত অক্সিজেন সরবরাহের বিষয়ে। সিলেটে যেসব কোম্পানি অক্সিজেন সরবরাহ করে তাদেরকে সাপ্লাইয়ের পরিমাণ বাড়াতে বলা হয়েছে। এ নিয়ে ঢাকায় পররাষ্ট্রমন্ত্রী নিজে অক্সিজেন কোম্পানিগুলোর কর্তৃপক্ষের সঙ্গে বৈঠক করবেন। এছাড়াও পররাষ্ট্রমন্ত্রী স্বাস্থ্যমন্ত্রণালয়ে বৈঠক করে সিলেট এম এ জি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের অক্সিজেন সঞ্চালন প্লান্টের সক্ষমতা বাড়ানোর বিষয়ে আলোচনা করে দ্রুত পদক্ষেপ গ্রহণ করবেন।

মেয়র বলেন, সভায় জেলা প্রশাসনের প্রতি অনুরোধ জানানো হয়েছে- যাতে জনসাধারণের মাস্ক ব্যবহার নিশ্চিত করা হয়। এ ক্ষেত্রে যতটা কঠোর হওয়া প্রয়োজন ততটা কঠোর হতে হবে প্রশাসনকে।

সভায় বক্তব্য রাখেন সিলেট মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি মাসুক উদ্দিন আহমদ, সাধারণ সম্পাদক অধ্যাপক মো. জাকির হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সাদালন সম্পাদক নাসির উদ্দিন খান, অতিরিক্ত বিভাগীয় কমিশনার মোহাম্মদ জাকারিয়া, সিলেট মহানগর পুলিশের অতিরিক্ত কমিশনার পরিতোষ ঘোষ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সিলেট বিভাগীয় পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায়, সিলেটের সিভিল সার্জন ডা. প্রেমানন্দ মন্ডল, ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ব্রিগেডিয়ার জেনারেল ব্রায়ান বঙ্কিম, সিলেট জেলা আইনজীবী সমিতির সভাপতি এটিএম ফয়েজ, সিলেট চেম্বারের সভাপতি এটিএম সুয়েব, সিলেট জেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক মাহিউদ্দিন আহমদ সেলিম, সম্মিলিত নাট্য পরিষদ সিলেটের সভাপতি মিশফাক আহমদ চৌধুরী মিশু, জালালাবাদ রাগীব রাবেয়া মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক অধ্যাপক ডা. মো. তারেক আজাদ প্রমুখ।বিজ্ঞপ্তি

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •