• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৭শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

শাহপরাণ (রহঃ) থানা পুলিশের অভিযানে ১৫ লক্ষ টাকার ভারতীয় ঔষধসহ গ্রেফতার ২ জন

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত জুলাই ১৮, ২০২১
শাহপরাণ (রহঃ) থানা পুলিশের অভিযানে ১৫ লক্ষ টাকার ভারতীয় ঔষধসহ গ্রেফতার ২ জন

অদ্য ১৮ জুলাই সকাল ১০.০০ ঘটিকার সময় শাহপরাণ (রহঃ) থানাধীন খাদিমপাড়াস্থ চৌমুহনা বাজার এলাকা হতে ১৫ লক্ষ টাকার ভারতীয় ঔষুধসহ দুইজনকে গ্রেফতার করেছে শাহপরাণ (রহঃ) থানা পুলিশ। গ্রেফতারকৃতরা হলেন ১) গোয়াইনঘাট থানার নলঝুড়ি গ্রামের মৃত ইয়াকুব আলীর ছেলে ফয়সল আহমদ (২৫) এবং জকিগঞ্জ থানার আটগ্রাম গ্রামের হাবিবুর রহমানের ছেলে জাকির হোসেন ডালিম (২৮)। শাহপরাণ (রহঃ) মাজার পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের এসআই(নিঃ)/উত্তম রায় চৌধুরীর নেতৃত্বে একদল পুলিশ সিলেট-তামাবিল সড়কের বাইপাস পয়েন্টে নিয়মিত চেকপোষ্ট ডিউটি করাকালে সকাল অনুমান ০৯.৩০ ঘটিকার সময় তামাবিল দিক হতে আসা একটি প্রাইভেটকারকে থামানোর জন্য পুলিশ সিগন্যাল দেয়। কিন্তু চালক সিগন্যাল অমান্য করে সিলেট শহরের দিকে যেতে থাকে। পুলিশ পিছন হতে ধাওয়া করে খাদিমপাড়াস্থ চৌমুহনা বাজারে উক্ত প্রাইভেটকারটির গতিরোধ করে এব্ং তল্লাশী করে প্রাইভেটকারের ভিতর হতে ভারতীয় তৈরী Sterile Noradremaline Concentrate IP নামক দশ হাজার ইনজেকশন ঔষধ এবং প্রাইভেটকারের চালকসহ উপরে বর্ণিত দুই ব্যক্তিকে আটক করে। জব্দকৃত ইনজেকশন ঔষধের মূল্য ১৫,০০,০০০/- (পনের লক্ষ) টাকা। দুই কার্টুনে ভর্তি উক্ত দশ হাজার পিস ইনজেকশন ঔষধ ছাড়াও বহনকারী যান অর্থাৎ প্রাইভেটকারও পুলিশ জব্দ করে। প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে গ্রেফতারকৃতরা কানাইঘাট সীমান্ত এলাকা দিয়ে ভারত হতে উক্ত ঔষধ চোরাচালানের মাধ্যমে এনে বিক্রয়ের উদ্দেশ্যে সিলেট শহরের দিকে যাচ্ছিল বলে স্বীকার করে। এই বিষয়ে এসআই উত্তম রায় চৌধুরী বাদী হয়ে গ্রেফতারকৃতদের বিরুদ্ধে শাহপরাণ (রহঃ) থানায় বিশেষ ক্ষমতা আইনে মামলা দায়ের করেন।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •