• ৩১শে জুলাই, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২১শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

বালুচর এলাকায় ১মাসের বকেয়া বাসা ভাড়া থাকায় অন্তঃসত্ত্বা মহিলার তলপেটে লাথি মেরে রক্ত ক্ষরণ

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত জুলাই ৭, ২০২১
বালুচর এলাকায় ১মাসের বকেয়া বাসা ভাড়া থাকায় অন্তঃসত্ত্বা মহিলার তলপেটে লাথি মেরে রক্ত ক্ষরণ

সিলেট নগরীর হযরত শাহপরাণ (রা:) থানার উত্তর বালুচর এলাকায় বাসা বাড়ির মাত্র ১মাসের বকেয়া থাকায় সন্ত্রাসী প্রকৃতির জমিদারের নেতৃত্বে সাড়ে ছয় মাসের গর্ভবর্তী মহিলার গর্ভপাত নষ্ট করার চেষ্টা ও ভাড়াটিয়ার উপর অতর্কিত হামলা চালানো হয়েছে। হামলায় বাসার ভাড়াটিয়া মোঃ জুয়েল শিকদারের স্ত্রী গুরুতর আহত হয়েছে।

গতকাল ৫ জুলাই বিকাল ৩টায় নগরের উত্তর বালুচর এলাকার ১৪৪ রেনু কটেজ এর নিচ তলায় বাসার ভিতরে এ ঘটনা ঘটে। এনিয়ে বাসার অন্যান্য ভাড়াটিয়া ও স্থানীয়দের মাঝে ক্ষোভ ও উত্তেজনা দেখা দিয়েছে।

এ ঘটনায় বিবরন দিয়ে হযরত শাহপরাণ (রা:) থানায় অভিযোগ দাখিল করেছেন অন্তঃসত্ত্বা মহিলা রিমা বেগম (২০) ।

বিবাদীরা হলেন,উত্তর বালুচর এলাকার ১৪৪ রেনু কটেজ এর ২য় তলা’র ১নং বিবাদী ছায়েম(২৬), ২নং রেনু বেগম(৫০),তনং বিবাদী জুলি(৩৫)।

অভিযোগ সুত্রে জানা গেছে, নগরের উত্তর বালুচর এলাকার ১৪৪ রেনু কটেজ এর নিচ তলায় বাসার একটি ফ্লাটে বিগত ৭মাস ধরে ভাড়া থাকেন রিমা বেগম ও তার স্বামী মোঃ জুয়েল শিকদার। বর্তমান করোনার মহামারিতে মাত্র এক মাসের বাসা ভাড়া দেওয়ার কথা ছিল চলিত মাসের ৫ তারিখ ।কিন্তুু ব্যাংক বন্ধ থাকায়া বাসা ভাড়া না দেওয়াতে বাসার মালিকের মেয়ে জুলি বাসা ভাড়া খুজলে রিমা তিনিকে বলেন ব্যাংক বন্ধ ব্যাংক খুললেই আপানার টাকা দিয়ে দিব,আমার স্বামীর বেতনের টাকা থেকে।এ কথা বলতেও ২ নং বিবাদী জুলি রিমাকে গালিগালাজ শুরু করেন।এরপর তিনি তিনি গালিগালাজ না করতে বাধা দিলে জুলি ক্ষিপ্ত হয়ে রিমা বেগমের চুলের মুঠি ধরে কিল ঘুসি মারতে থাকেন।এপপর রিমা চিৎকার করতে থাকেন, তার চিৎকারে আশপাশের ভারাটিয়ারা আসেন এবং একই সঙ্গে ১নং বিবাদী ছায়েম এসে রিমা বেগমের তলপেটে লাথি মারেন তখন রিমা তার লাথিতে মাঠিতে পড়ে অজ্ঞান হয়ে পড়ে থাকেন ও তার অন্তঃসত্ত্বা’র রক্তক্ষরন শুরু হয়।

এরপর তার স্বামী চাকরীজীবি মোঃ জুয়েল শিকদার সংবাদ পেয়ে বাসায় এসে স্ত্রীকে নিয়ে ডাক্তারের কাছে ছুটে যান।

এ ব্যাপারে রিমার স্বামী সিলেটপোস্টকে জানান,আমি একটি সরকারী প্রতিষ্টানে ছোট পদে চাকরী করি,এ গঠনার সময় আমি বাসার বাহিরে ছিলাম।বাসায় আমি আর আমার স্ত্রী থাকি। আমার স্ত্রীকে বিবাদীরা একা পেয়ে এ অবস্থা করেছে।তাছারা আমার স্ত্রী রিমা অন্তঃসত্ত্বা, ওরপেটে আমার সন্তান, আমার সন্তানকেও মারার চেষ্টা করেছে বিবাদীরা, আমি এ ঘঠনার কঠোর ভাবে বিচার চাই।

পাশের ইউনিটের ভাড়াটিয়ারা জানান,বিবাদীরা প্রত্যেক এর সাথে মাস শেষ হলে এরকম গালিগালাজ করে এবং খুবই খারাপ আচরন করে।গতকালকের যে ঘঠনা ঘঠেছে আমাদের চোখের সামনে মেয়েটাকে মারল।আমরা অসহায়দেরমত দেখলাম এবং কিছু বলতে গেলে আমাদেরকেও গালিগালাজ শুরু করে দেয়।

তবে অভিযোগকারী রিমা বেগম জানান, এ ঘটনায় উল্যেখ করে হযরত শাহপরাণ (রা:) থানায় আমি বাদী হয়ে অভিযোগ দাখিল করি ।উক্ত অভিযোগ পেয়ে আজ থানা থেকে পুলিশ কর্মকর্তারা বিস্তারিত জেনে গেছেন।

এ ব্যাপারে হযরত শাহপরাণ (রা:) থানার ওসিকে ফোন দিলে তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

২১০ বার পঠিত
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০
৩১  
0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x