• ৪ঠা আগস্ট, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ২০শে শ্রাবণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৫শে জিলহজ, ১৪৪২ হিজরি

করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত জুন ১৪, ২০২১
করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ: সিইসি

প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) কে এম নুরুল হুদা বলেছেন,পাশের দেশ ভারতের পশ্চিমবঙ্গে সম্প্রতি নির্বাচন অনুষ্ঠিত হলেও সবচেয়ে বেশি করোনায় আক্রান্ত হয়েছে দিল্লিতে। সেখানে (দিল্লি) নির্বাচন হয়নি।

আমেরিকায়ও নির্বাচনের পরে করোনা সংক্রমণ বাড়েনি। করোনার চেয়ে নির্বাচন বেশি গুরুত্বপূর্ণ। তাছাড়া নির্বাচনে করোনার বিস্তার ঘটায় এমন যুক্তিতে আমি বিশ্বাস করি না।

শনিবার (১২ জুন) বেলা সাড়ে ১১টায় বরিশাল সার্কিট হাউজে পৌর এবং ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন উপলক্ষে আয়োজিত আইনশৃঙ্খলা সংক্রান্ত সভা শেষে তিনি এসব কথা বলেন।

নাগরিকদের জাতীয় পরিচয়পত্র (এনআইডি কার্ড) প্রদানের বিষয়টি নির্বাচন কমিশনের কাছে থাকবে কি-না জানতে চাইলে সিইসি বলেন, ‘বিশ্বের অন্যান্য দেশে এনআইডি কার্যক্রম ভিন্ন মন্ত্রণালয়ের কাছে ন্যস্ত থাকে। নির্বাচন কমিশন শুধু নির্বাচন পরিচালনা করে। আমাদের দেশে যেহেতু এনআইডি কার্যক্রমেরও সূচনা করেছে নির্বাচন কমিশন, তাই এটি কমিশনের কাছেই থাকা উচিত বলে সরকারের কাছে লিখিত ব্যাখ্যা দিয়েছি।’

সভায় সিইসি বলেন, ‘বরিশালসহ যেসব এলাকায় করোনা সংক্রমণ কম, সেসব এলাকার ২০৮টি স্থানীয় সরকার প্রতিষ্ঠানের নির্বাচন আগামী ২১ জুন নির্ধারিত সময়ে অনুষ্ঠিত হবে। তবে করোনা সংক্রমণ বেশি হওয়ায় স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শে খুলনা অঞ্চলের ১৬৩টি স্থানীয় সরকার নির্বাচন স্থগিত রয়েছে।’

করোনার এ দুর্যোগেও নির্বাচন চালিয়ে যাওয়ায় সরকারি কর্মকর্তাদের ধন্যবাদ জানান সিইসি।

তিনি বলেন, ‘করোনার কারণে এর আগে এক দফা নির্বাচন পেছানো হলেও সংক্রমণ তুলনামূলক কম হওয়ায় বরিশাল এবং মাদারীপুর অঞ্চলে বৃষ্টি মৌসুমেও নির্বাচন চালিয়ে যেতে হবে। নির্বাচন নিরপেক্ষ, সুষ্ঠু ও শান্তিপূর্ণ করতে প্রশাসন ও আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দেন সিইসি। প্রার্থীদের আচরণবিধি মেনে চলার জন্য আহ্বান জানান তিনি।’

বরিশালের নদী বেষ্টিত তিনটি উপজেলা হিজলা, মুলাদী ও মেহেন্দিগঞ্জে প্রয়োজনীয় সংখ্যক কোস্ট গার্ড মোতায়েনের নির্দেশ দেন প্রধান নির্বাচন কমিশনার।

স্থানীয় রাজনীতির সমীকরণ এবং অভ্যন্তরীণ কোন্দলে আসন্ন ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে বরিশালে বিশৃঙ্খলার শঙ্কা প্রকাশ করেন মাঠ পর্যায়ের নির্বাচন কর্মকর্তারা। পরিস্থিতি সামলাতে প্রত্যেক ইউনিয়নে একজন করে ম্যাজিস্ট্রেট চেয়েছেন তারা। এ সময় প্রধান নির্বাচন কমিশনার হুঁশিয়ারি দেন, কে কোন দল, মতের তা বিবেচনা করা হবে না। আচরণবিধি ভঙ্গকারীদের বিরুদ্ধে কঠোর ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশ দেন তিনি।

বরিশালের জেলা প্রশাসক জসীম উদ্দীন হায়দারের সভাপতিত্বে সভায় বিশেষ অতিথি ছিলেন বিভাগীয় কমিশনার সাইফুল হাসান বাদল, মেট্রো পুলিশ কমিশনার শাহাবুদ্দিন খান, রেঞ্জ ডিআইজি এসএম আক্তারুজ্জামান, নির্বাচন কমিশন সচিবালয়ের যুগ্ম সচিব ফরহাদ আহামদ খান, বরিশাল আঞ্চলিক নির্বাচন কর্মকর্তা মো. আলাউদ্দিন প্রমুখ।

প্রসঙ্গত, আগামী ২১ জুন বরিশালে ৫০টি ইউনিয়ন পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে।

৮২ বার পঠিত
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

0
Would love your thoughts, please comment.x
()
x