• ১লা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৬ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৬শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

নগরীর কাজিটুলায় যুবকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য, পরিবারের দাবি হত্যা

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত জুন ৮, ২০২১
নগরীর কাজিটুলায় যুবকের মৃত্যু নিয়ে রহস্য, পরিবারের দাবি হত্যা

নিউজ ডেস্ক : সিলেটের এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ১১ নং ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় নাজিম আহমদ রাবিদ (৩১) নামের এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সে শাহপরাণ (র.) থানার পীরের বাজারের আটগাঁও কেউয়া গ্রামের আব্দুন নুর ছেলে। সোমবার (৭ জুন) সকাল সাড়ে ১০ টার দিকে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

তবে এ যুবকের মৃত্যু নিয়ে দেখা দিয়েছে রহস্য। সহপাঠীরা পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়েছিলেন উল্লেখ করে হাসপাতালে ভর্তি করালেও পরিবারের দাবি এটি হত্যাকাণ্ড।

এদিকে সিলেট ওসমানী মেডিকেল পুলিশ ফাঁড়ির একটি সূত্রে জানা যায় ওই যুবকের ভর্তি তথ্যে গড়মিল রয়েছে। সকাল ৯ টা ৩০ মিনিটের দিকে দুই থেকে ৩ জন যুবক আহত অবস্থায় রাবিদকে হাসপাতালে নিয়ে আসেন। এসময় তারা পড়ে গিয়ে আঘাত পেয়েছে উল্লেখ করে হাসপাতালে ভর্তি করান। ভর্তির তথ্যে তারা আহত যুবকের নাম ‘রাবিদ’ লিখান। এমনকি ঠিকানার জায়গায় দক্ষিণ সুরমা থানার শিলাম এবং পিতার নাম আনোয়ার হোসেন লিপিবদ্ধ করান।

অপরদিকে বিকাল ৪ টার দিকে হাসপাতালে উপস্থিত নিহতের চাচাত ভাই হোসেন আহমদ বলেন, ‘আমার চাচাত ভাইয়ের নাম নাজিম আহমদ রাবিদ। আমাদের বাড়ি সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের শাহপরাণ (র.) থানা এলাকার পীরের বাজার।

আর আমার চাচার নাম আব্দুন নুর। চাচাত ভাই কাজিটুলার উঁচা সড়ক এলাকার একটি বাসায় কয়েকজনের সাথে ভাড়া থাকতেন। কিন্তু তারা ভুল তথ্য দিয়ে আমার ভাইকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছে।’

এসময় তিনি আরও বলেন,আমার ধারণা তারা আমার ভাইকে হত্যা করেছে। সকালে যিনি আমার ভাইকে হাসপাতালে ভর্তি করিয়েছেন আমি উনার নাম চিনি না।

কিন্তু খবর পেয়ে আমি হাসপাতালে এসে উনার সাথে কথা বলেছি। উনি বলছেন আমার ভাই সিঁড়ি থেকে পড়ে আহত হয়েছেন। বাসার দারোয়ান তাদের জানিয়েছে। পরে তারা হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন। কিন্তু আমার ভাইয়ের হাত পায়ের কোথাও কোন আঘাত নেই। কেবল মাথায় আঘাত।’

অপরদিকে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে সিলেট মেট্রোপলিটন পুলিশের কোতোয়ালী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এসএম আবু ফরহাদ বলেন, এখনই কিছু বলতে পারছি না। তবে আমরা ঘটনাস্থলে আছি। সে যে কক্ষে থাকত সেখান থেকে ২৫ পিস ইয়াবা টেবলেট ও ইয়াবা সেবনের সরঞ্জাম উদ্ধার করা হয়েছে। তদন্ত চলছে। বিস্তারিত পরে বলতে পারব।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •