• ২রা ডিসেম্বর, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১৭ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ২৭শে রবিউস সানি, ১৪৪৩ হিজরি

জৈন্তাপুরে স্বজনের লাশ দেখতে গিয়ে একই পরিবারের পাঁচজন লাশ!

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত মে ২, ২০২১
জৈন্তাপুরে স্বজনের লাশ দেখতে গিয়ে একই পরিবারের পাঁচজন লাশ!

সিলেটের জৈন্তাপুর উপজেলায় তামাবিল মহাসড়কের ফেরিঘাট নামক স্থানে রোববার (২ এপ্রিল) সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনা ঘটে।

স্বজনের মৃত্যু সংবাদ শুনে তার লাশ দেখতে যাওয়ার সময় ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে দুই শিশুসহ একই পরিবারের পাঁচজন নিজেরাই লাশ হয়ে ফিরলেন।

একই পরিবারের পাঁচ সদস্যকে হারিয়ে শোকের সাগরে বাসছে স্বজন ও প্রতিবেশীরা। মর্মান্তিক এ দুর্ঘটনায় জৈন্তাপুর উপজেলার সর্বত্র শোকের ছায়া বিরাজ করছে। এদিকে, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত একই পরিবারের পাঁচ জনের দাফন সম্পন্ন হয়েছে তাদের গ্রামের বাড়িতে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, জৈন্তাপুর ফেরিঘাট এলাকায় একটি যাত্রীবাহী সিএনজিচালিত অটোরিকশা হঠাৎ মহাসড়কে উঠলে দ্রুতগামী একটি ট্রাক অটোরিকশাকে চাপা দেয়। এতে ঘটনাস্থলে চারজন ও হাসপাতালে নেওয়ার পথে একজনের মৃত্যু হয়

জানা যায়, রোববার সেহরির সময় সাদিয়া বেগমের চাচাতো ভাই মারা গেছেন।

জৈন্তাপুরের দরবস্ত এলাকায় বাড়ি। এই খবর পেয়ে রোববার ভোরেই পরিবারের আরও ৬ সদস্যকে নিয়ে চাচাতো ভাইয়ের মরদেহ দেখতে রওয়ানা দেন সাদিয়া।

তবে ভাইয়ের লাশ আর দেখা হয়নি তার। বরং সড়কে লাশ হয়ে গেছেন নিজেরাই। রোববার সকালে সড়ক দুর্ঘটনায় মারা গেছেন সাদিয়াসহ তার পরিবারের ৪ সদস্য। তাদের বাড়ি উপজেলার রূপচেঙ গ্রামে। এই দুর্ঘটনায় মারা গেছেন অটোরিকশা চালকও।

নিহতরা হলেন- পাখিবিল এলাকার মৃত আরব আলীর ছেলে হোসেন আহমদ (৩৬), জামাল মিয়ার স্ত্রী সাফিয়া বেগম (৩০), জামাল মিয়ার মেয়ে সাদিয়া (৬) ও ছেলে শাহাদাত (৫ মাস), মৃত হাফিজ মিয়ার স্ত্রী হাবিবুন্নেসা (৩৩)।

আহতরা হলেন- পাখিবিল এলাকার মৃত আরজান আলীর ছেলে জাকারিয়া ও জাকারিয়ার স্ত্রী হাসিনা বেগম। আহতদের সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

এদিকে, সড়ক দুর্ঘটনায় নিহত একই পরিবারের পাঁচ জনের দাফন করা হয়েছে জৈন্তাপুরে তাদের গ্রামের বাড়িতে । রবিবার বাদ জোহর উপজেলার পাখিবিল তাদের গ্রামের মসজিদে নামাজে জানাজা শেষে দাফন সম্পন্ন হয়।

সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •