• ২৪শে জুন, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ , ১০ই আষাঢ়, ১৪২৮ বঙ্গাব্দ , ১৪ই জিলকদ, ১৪৪২ হিজরি

বিচ্ছিন্ন হওয়ার শঙ্কা গোয়াইনঘাট সালুটিকর সড়ক, জনদুর্ভোগ চরমে

sylhetnewspaper.com
প্রকাশিত এপ্রিল ২১, ২০২১
বিচ্ছিন্ন হওয়ার শঙ্কা গোয়াইনঘাট সালুটিকর সড়ক, জনদুর্ভোগ চরমে

গোয়াইনঘাট প্রতিনিধি : সিলেটের সালুটিকর – গোয়াইনঘাট এলজিইডির ২৪ কিলোমিটার সড়কের সিংহভাগ অংশের পিচ ও খোঁয়া উঠে বড় বড় গর্তের সৃষ্ঠি হয়েছে। দীর্ঘ ২ বছর ধরে সড়কটি সংষ্কার না করায় চলাচলের একেবারে অনুপযোগী হয়ে পড়েছে। এমন অবস্থায় পথচারীদের দুর্ভোগের পাশাপাশি যানবাহনের ক্ষতিসাধন বেড়েছে বহুগুণ। সমাগত বর্ষা মওসুমের আগে সড়কটি সংষ্কার না হলে উপজেলা সদরসহ সিলেট জেলা সদরের সাথে বিচ্ছিন্ন হয়ে পড়বে পশ্চিম গোয়াইনঘাট বাসীর সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা। সালুটিকর হইতে গোয়াইনঘাট পর্যন্ত ২৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্য সড়কটি এলজিইডির মালিকানাধীন।

অনুসন্ধানে জানা যায়, ২০১৬ সালের গোড়ার দিকে প্রায় ১৮ কোটি টাকা ব্যায়ে সড়কটির সংস্কার কাজ শুরু করে এলজিইডি। উক্ত সড়কটির সংস্কার কাজ শেষ হয় ২০১৮ সালে। সংস্কার কাজ শেষ হওয়ার পর প্রতি বছর ভারত থেকে নেমে পাহাড়ি ঢলে সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়কটির ২৪ কিলোমিটার দৈর্ঘ্যের মধ্যে প্রায় ১৬ কিলোমিটার রাস্তা তলিয়ে যায়। মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) সরেজমিনে গিয়ে দেখা যায়, সালুটিকর বাজারের ১ কিলোমিটারের ভেতরে কমপক্ষে ১০টি গভীর গর্ত রয়েছে। নয়াগাঁও হতে নন্দীরগাঁও গ্রামের মধ্যে আরও ৫টি গভীর গর্ত। সোনার বাংলা হতে তোয়াকুল ও বঙ্গবীর পয়েন্ট পর্যন্ত গর্তের কারণে চলাচলের অনুপযোগী। বঙ্গবীর হতে গোয়াইনঘাট উপজেলা সদর পর্যন্ত সড়কটির অবস্থা আরও নাজুক।সড়কটি দিয়ে প্রতিদিন গোয়াইনঘাট উপজেলার লক্ষাধিক মানুষ যাতায়াতের পাশাপাশি চলাচল করে শত শত বাস, ট্রাক, পিকআপ,ইঞ্জিন চালিত ভ্যান।

দেশের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ পর্যটন কেন্দ্র বিছনাকান্দি, জাফলং,পান্তুমাই ও মায়াবতী ঝর্ণা গোয়াইনঘাট উপজেলায় অবস্থানের কারণে প্রতিদিন এ সড়ক দিয়ে দেশী-বিদেশী হাজার হাজার পর্যটকের সমাগম ঘটে। এ সড়কটিকে কেন্দ্র সরকার প্রতিবছর এলাকাটি থেকে বিভিন্ন খাতে বিপুল পরিমাণ রাজস্ব আয় করলেও সামগ্রীক উন্নয়নে জনপদটি বরাবরই উপেক্ষিত হয়ে থাকে। সমাগত বর্ষা মওসুমের আগে জনগুরুত্বপূর্ণ সড়কটি সংস্কার না হলে যে কোন মূহুর্তে বিচ্ছিন্ন হতে পারে গোয়াইনঘাটের সাথে সারাদেশের সড়ক যোগাযোগ ব্যবস্থা।

এ ব্যাপারে গোয়াইনঘাট উপজেলা প্রকৌশলী মোঃ রফিকুল ইসলাম বলেন, বারবার পাহাড়ি ঢলে তলিয়ে যাওয়ার কারণে ও নিয়মিত সংস্কার না করায় সালুটিকর-গোয়াইনঘাট সড়কটির অবস্থান অত্যান্ত নাজুক। উক্ত রাস্তাটি দ্রূত সংস্কারের জন্য ঊর্ধ্বতন কতৃপক্ষের দৃষ্টি আকর্ষণ করা হয়েছে। আশাকরি দ্রুত এ সমস্যা থেকে আমরা বেরিয়ে আসবো।

গোয়াইনঘাট উপজেলা নির্বাহী অফিসার তাহমিলুর রহমান জানান, রাস্তার বড় বড় গর্ত গুলো মোবাইল মেন্টেনেইন্সের মাধ্যমে দ্রুত সংস্কারের জন্য এলজিইডি কর্তৃপক্ষকে বলা হয়েছে।

এ ব্যাপারে সিলেট এলজিইডির নির্বাহী প্রকৌশলী এনামুল কবির বলেন, সালুটিকর- গোয়াইনঘাট সড়কে সৃষ্ট বড় বড় গর্ত গুলো সংস্কার করতে আমাদের সময় দিতে হবে। আমরা অন্যত্র কাজ করছি।

৮২ বার পঠিত
সংবাদটি ভালো লাগলে শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
শনি রবি সোম মঙ্গল বুধ বৃহ শুক্র
 
১০১১১২১৩১৪১৫১৬
১৭১৮১৯২০২১২২২৩
২৪২৫২৬২৭২৮২৯৩০